হোটেলের দরজা ভেঙে মরিয়ম নওয়াজের স্বামীকে গ্রেফতার

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের জামাতা মরিয়ম নওয়াজের স্বামী ক্যাপ্টেন সফদারকে গ্রে'ফতার করেছে দেশটির পুলিশ। সোমবার করাচির হোটেল কক্ষের দরজা ভেঙে তাকে গ্রে'ফতার করা হয়। পাকিস্তান মুসলিম লীগের

সহসভাপতি মরিয়ম নওয়াজ ইমরান খানবিরোধী জ্বালাময়ী বক্তব্য দেয়ার একদিন পরই তার স্বামীকে গ্রে'ফতার করল দেশটির পুলিশ। খবর ডন, জিনিউজ ও জিওনিউজের। সোমবার সকালে মরিয়ম নওয়াজ টুইট করে তার স্বামীকে গ্রে'ফতারের

বিষয়টি নিশ্চিত করেন। টুইটে মরিয়ম লেখেন– করাচির একটি হোটেলে তারা অবস্থান করছিলেন। সোমবার ভোরে হোটেল কক্ষের দরজা ভেঙে পুলিশ জোর করে তাদের কক্ষে প্রবেশ করে। এ সময় মরিয়ম ঘুমন্ত অবস্থায় ছিলেন। এর পর পুলিশ তার স্বামীকে গ্রে'ফতার করে নিয়ে যায়। ক্যাপ্টেন সফদারকে আজিজ ভাটি থানায় নেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। যদিও পুলিশ এখনও তাকে গ্রে'ফতারের বিষয়ে কোনো বক্তব্য দেয়নি।এদিকে ক্ষমতাসীন দল পিটিআই নেতা ও ইমরান সরকারের মন্ত্রী আল জাইদি মরিয়মের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, পুলিশ কারও কক্ষের দরজা ভাঙেনি। মরিয়ম মিথ্যাচার করছেন। রোববার পাকিস্তানের বিরোধী দলগুলোর ইমরানবিরোধী এক বিক্ষোভে যোগ দেন মরিয়ম নওয়াজ। ওই বিক্ষোভে স্লোগান দেন ক্যাপ্টেন সফদার। বিক্ষোভটি হয় একটি সমাধিতে। পুলিশের অভিযোগ, ওই স্থানে বিক্ষোভ করে সমাধির পবিত্রতা নষ্ট করা হয়েছে। এ কারণে মরিয়ম, সফদারসহ ২০০ জনের বিরুদ্ধে প্রাথমিক তদন্ত প্রতিবেদন দেয় পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশ সফদারকে গ্রে'ফতার করেছে।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *