ফ্রান্সের পাশে দাঁড়াল যুক্তরাজ্য

ডেস্কঃ বাক-স্বাধীনতার দোহাই দিয়ে মহানবী মুহাম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রকাশ অব্যাহত রাখতে ধর্মনিরপেক্ষ আইনকে সমর্থন দেয়ায় ফ্রান্স এবং দেশটির

প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁর বিরুদ্ধে বিশ্বের বিভিন্ন মুসলিম দেশে বিক্ষোভ, নিন্দা জানানোর পাশাপাশি ফরাসি পণ্য বর্জন অব্যাহত রয়েছে। তবে এমন

পরিস্থিতির মধ্যেই ফ্রান্সের পাশে দাঁড়াল যুক্তরাজ্য। এই তথ্য জানা গেছে রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে। এক বিবৃতিতে ব্রিটেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাব বলেন, স্যামুয়েল প্যাটির নির্মম হত্যাকাণ্ডের প্রেক্ষাপটে ফ্রান্স এবং ফরাসি জনগণের প্রতি সংহতি জানাচ্ছে যুক্তরাজ্য। সন্ত্রাসবাদ কখনই ন্যায়সঙ্গত হতে পারে না এবং হওয়া উচিত নয়। বিবৃতিতে ডমিনিক রাব আরো বলেন, সহনশীলতা এবং বাকস্বাধীনাতর মৌলিক মূল্যবোধের প্রতি কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দাঁড়াতে হবে ন্যাটোর মিত্র

ও বৃহত্তর আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের। আমাদের বিভক্ত করার উপহার সন্ত্রাসীদের দেওয়া উচিত নয়। এর আগে হাজার হাজার ভারতীয় ফ্রান্সের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করে সামাজিকমাধ্যমে হ্যাশট্যাগ বার্তা দিয়েছেন। টাইমস অব ইন্ডিয়া, ইন্ডিয়া টুডে ও আলজাজিরার খবরে এমন তথ্য মিলেছে। সোম ও মঙ্গলবার দেশটিতে টুইটারে ‘হ্যাশট্যাগ আইস্ট্যান্ড উইথ ফ্রান্স’ ও ‘উই স্ট্যান্ড উইথ ফ্রান্স’ সর্বোচ্চ ট্রেন্ড হিসেবে দেখা গেছে। উল্লেখ্য, ফ্রান্সে স্যামুয়েল প্যাটি নামের এক ইতিহাস শিক্ষক ক্লাসে বাকস্বাধীনতা বিষয়ে পাঠদানের সময় নবী মুহাম্মদ (সা.)-এর কার্টুন দেখান। যার জেরে গত ১৬ অক্টোবর চেচেন বংশোদ্ভূত এক ব্যক্তি ছু'রি হাতে ওই শিক্ষককে আক্রমণ করে এবং তার শিরশ্ছেদ করে। এ ঘটনা ফ্রান্সে তীব্র আলোড়ন সৃষ্টি করে। অনেক ফরাসি ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানান। দেশটির প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল ম্যাক্রোঁ এ হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানিয়ে ধর্মনিরপেক্ষ ফরাসি মূল্যবোধ সুরক্ষিত রাখা এবং ইসলামি মৌলবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের অঙ্গীকার করেন।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *