চেয়ারম্যান হওয়ার পরদিনই বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে পুলিশের মামলা

বিএনপি মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থী হিসেবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার পরদিনই তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার

দশঘর ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যানসহ ১৫৫ জন বিএনপি নেতাকর্মীর বি’রু’দ্ধে নির্বাচনের দিন পুলিশের উপর হা’ম’লা, নির্বাচনী সরঞ্জাম বহনকারী গাড়ি ভাং’চুর ও সরকারি কাজে বা’ধা দেয়ার অ’ভিযো’গে মা’ম’লা দায়ের হয়। শুক্রবার দিবাগত রাতে বিশ্বনাথ থানার এসআই নুর হোসেন বাদি হয়ে এই

মা’ম’লাটি দায়ের করেন। মা’ম’লার এজাহারে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান এমাদ উদ্দিন খানকে প্রধান আসা’মি করে ৩৫ জনের নাম উল্লেখ করা হয়। এছাড়াও ওই মাম’লায় আরও ১০০/১২০ জনকে অ’জ্ঞা’তনামা আসা’মি রাখা হয়েছে। পুলিশ জানায়, গত বৃহস্পতিবার দশঘর ইউনিয়ন নির্বাচনের পর দশঘর এনইউ

উচ্চবিদ্যালয় ভোটকেন্দ্র থেকে সন্ধ্যায় ব্যালট বাক্স ও নির্বাচনী সরঞ্জাম নিয়ে উপজেলা সদরে ফেরার সময় পুলিশের উপর হাম’লা করে আ’সামিরা। এসময় নির্বাচনী সরঞ্জাম বহনকারী একটি পিকআপ ট্রাকের গ্লাস ভে’ঙে যায়। পরে পুলিশ ৫ রাউন্ড শ’র্টগা’নের গু’লি চালিয়ে হা’ম’লাকা’রী’দের হাত থেকে র’ক্ষা পেয়ে উপজেলা সদরে পৌঁছে।এদিকে মা’মলা হওয়ার পর থেকে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান এমাদ খানের মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। থানার ওসি শামিম মুসা মা’মলা দায়েরের সত্যতা স্বীকার করে বলেন, আসা’মিদের গ্রে'’ফতার করতে অভি’যান অব্যাহত রয়েছে। সুত্রঃ যুগান্তর।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *