বয়স ৪০ পেরিয়ে গেলেও বিয়ের ফুল ফুটেনি তাদের

তারকাদের বিয়ে নিয়ে ভক্তদের কৌতূহল আকাশছোঁয়া। অথচ তাদের বিয়ের খবর অনেক সময় সাধারণের অধ’রাই থাকে। ঢাকাই চলচ্চিত্রে এমন বেশ কয়েকজন তারকা

রয়েছেন যারা জনপ্রিয়তায় এগিয়ে থাকলেও, জীবনসঙ্গী বেছে নেওয়ার ক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়েছেন। যদিও বিয়ের বয়স তাদের হয়েছে অনেক আগেই। ক্যারিয়ার ভাবনা, যোগ্য

জীবনসঙ্গীর জন্য অ’পেক্ষা ইত্যাদি কারণে তাদের মুখে বিয়ের নাম নেই। অথচ তাদের বিয়ে নিয়ে পাড়াপড়শির ঘুম টুটেছে অনেক আগেই। এমনকি এ বছরও ভক্তের ভাবনায় ছাই ছিটিয়ে তারা বিয়ের পিঁড়িতে বসেননি বা বসতে পারেননি। সাদিকা পারভিন পপি: এই তালিকায় সবার উপরে রয়েছেন জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা সাদিকা পারভিন পপি। অনেক আগেই বিয়ের ঘোষণা দিলেও এখন পর্যন্ত বিয়ের পিঁড়িতে বসেননি। ১৯৭৯ সালের ১০ সেপ্টেম্বর খুলনায় জন্ম নেওয়া এই নায়িকার প্রথম মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা

‘কুলি’। যদিও ১৯৯৭ সালে সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত ‘আমা’র ঘর আমা’র বেহেশত’ সিনেমায় অ’ভিনয়ের মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে পা রাখেন তিনি। পপি শ্রেষ্ঠ অ’ভিনেত্রী হিসেবে তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। অ’ভিনয় জীবনে সফল হলেও এখনও দাম্পত্য জীবন শুরু করতে পারেননি তিনি। এ প্রশ্নে বরাবরই বলে এসেছেন- মনের মতো পাত্র পেলেই বিয়ে করবেন তিনি। সিমলা: ‘ম্যাডাম ফুলি’খ্যাত চিত্রনায়িকা সিমলা। ডিভোর্সের পর এখনও একাকী’ জীবন কা’টাচ্ছেন। যদিও একাধিকবার বিয়ের ঘোষণা দিয়েছেন এই নায়িকা। পাত্র খুঁজছেন- এমনও শোনা গেছে তার মুখে। কিন্তু সুখবর আর পাওয়া যায়নি। ১৯৯৯ সালে মুক্তি পায় তার প্রথম

সিনেমা ‘ম্যাডাম ফুলি’। প্রথম সিনেমাতেই বাজিমাত করেন এই নায়িকা। পেয়ে যান জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। শাহনূর: বিশ বছর আগে ‘জিদ্দি সন্তান’ সিনেমা’র মাধ্যমে চলচ্চিত্রে আগমন ঘটে শাহনূরের। এর আগে ১৯৯৫ সালে তিনি টেলিভিশন ফটোসুন্দরী নির্বাচিত হয়েছিলেন। শাহনূরের জন্ম ১৯৮০ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি; যশোরে। তার সমসাময়িক অনেকেই বিয়ে করে সংসারি হয়েছেন কিন্তু তার এখনও বিয়ের সানাই বাজেনি। কেয়া: মনতাজুর রহমান আকবর পরিচালিত ‘কঠিন বাস্তব’ সিনেমা’র মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখেন কেয়া। ২০০১ সালের এটি অন্যতম ব্যবসা’সফল সিনেমা। প্রথম সিনেমাতেই দর্শকদের তাক লাগিয়ে দেন এই অ’ভিনেত্রী। এ পর্যন্ত প্রায় ৩০টি সিনেমায় অ’ভিনয় করেছেন। বিজ্ঞাপনচিত্রের মডেল হিসেবে কাজ করেও প্রশংসিত হয়েছেন। আলোড়ন সৃষ্টিকারী এ চিত্রনায়িকার এখনও বিয়ে হয়নি। জয়া আহসান: দুই বাংলার জনপ্রিয় অ’ভিনেত্রী জয়া আহসান। ওপার বাংলার সংবাদমাধ্যমে বিভিন্ন সময় তার বিয়ে ও প্রে’মের গুঞ্জন শোনা গেছে। যদিও সেগুলোর সত্যতা পাওয়া যায়নি। ব্যক্তিগত জীবনে জয়া ছিলেন মডেল ও অ’ভিনেতা ফয়সাল আহসানের সহধ’র্মিণী। ২০১১ সালে তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে। এরপর থেকে একাকী’ জীবন কা’টাচ্ছেন নন্দিত এই অ’ভিনেত্রী।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *