মিষ্টিকে বিয়ে করার কারণ জানালেন টম ইমাম

ভালোবাসার কোনো বয়স নেই কথাটির অরেক উদাহ’রণ টম ই’মাম ও মিষ্টি ই’মাম। তাদের ভালোবাসা বয়সের ঘরে আ’ট’কে থাকেনি। দু’জনের বয়সের তফাৎ

‘আকাশ-পাতাল’ হলেও ভালোবাসা তাদের এক করেছে। তবে এর নেপথ্যে রয়েছে করুণ একটি গল্প। টম ই’মামের দ্বিতীয় স্ত্রী’ হচ্ছেন মিষ্টি ই’মাম। এর আগে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আ’মেরিকান এই যুবক আরেকটি বিয়ে করেছিলেন। তার প্রথম স্ত্রী’ ছিলেন একজন আ’মেরিকান। গত ২০০১ সালে প্রথম বিয়ে করেন টম ই’মাম। কিন্তু তার

সেই স্ত্রী’ প্রায় ১০ বছর ধরে অ’সুস্থ ছিলেন। দীর্ঘদিন হাসপাতা’লে ভর্তি থাকার পর ২০১১ সালে মা’রা যান। প্রথম বিয়ের পর থেকে এ পর্যন্ত প্রায় ২০ বছর সন্তানদের কথা চিন্তা করে বিয়ে করেননি টম। এমনকি স্ত্রী’র শোক ও সন্তানের চিন্তায় টমও অ’সুস্থ হয়ে পড়েন। তবে কার জীবনে কখন বসন্ত নেমে আসে, তা বলা মুশকিল! টমের জীবনেও মিষ্টি নামের সেই বসন্ত নেমে আসে ২০১৯ সালে। প্রথমে প্রে’ম, তারপর বিয়ে। চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে তাদের বিয়ের এক বছর পূর্ণ হয়। সম্প্রতি টম ই’মাম ও

মিষ্টি ই’মামের বিবাহবার্ষিকী’র ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। স্বামীর বয়স স্ত্রী’র থেকে অনেক বেশি হওয়ায় তাদের নিয়ে অনেকেই আলোচনা-সমালোচনা করছেন। এ নিয়ে তিনি বলেন, অনেক খা’রাপ মন্তব্যও করেছেন। এগুলো কি আপনাদের ঠিক হলো? টম ই’মাম ও স্ত্রী’র মিষ্টি ই’মাম দুজনই বাংলাদেশী নাগরিক। টম ই’মাম বাংলাদেশেই শিক্ষা জীবন শেষ করে আ’মেরিকা পাড়ি জমান। বর্তমানে টম ই’মাম সেখানকার নাগরিক এবং সেখানে স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন। বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এই আ’মেরিকান এইচএসসি পাশ করেন পটুয়াখালী জুবেলী হাইস্কুল থেকে। ১৯৭৮-১৯৮২ শিক্ষাবর্ষে রাজধানীর শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় হতে গ্র্যাজুয়েশন শেষ করেন।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *