মোবাইলে প্রেম, বিয়ের পরদিন শ্বশুরবাড়ির টাকা-স্বর্ণ নিয়ে পালালো বর

প্রথমে মোবাইলে তাদের মধ্যে গড়ে ওঠে প্রেমের সম্প’র্ক। এরপর তারা বিয়েও করেন। কিন্তু বিয়ের পরদিন শ্বশুরবাড়ি বেড়াতে গিয়ে টাকা-পয়সা, স্বর্ণালংকার ও মোবাইলসহ

ঘরের মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে পা’লি’য়ে যান বর। বুধবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার পাচ্চর ইউনিয়নের মৃধা কান্দি গ্রামে। স্থানীয় ও পারিবারিক

সূত্রে জানা যায়, শিবচর উপজেলার পাচ্চর মৃধা কান্দি গ্রামের হযরত বেপারীর বিধবা মেয়ে রোকেয়ার সঙ্গে মোবাইল ফোনে হৃ’দয় নামের এক যুবকের পরিচয় হয়। নিজের বাবা-মা বেঁচে নেই জানিয়ে হৃদয় ওই নারীর সঙ্গে প্রেমের সম্প’র্ক গড়ে তোলেন। তিনি রাজধানীর গাবতলীতে থাকেন বলেও জানান রোকেয়াকে। সম্পর্কের এক পর্যায়ে হৃদয় বিয়ের প্রস্তাব দেন ওই নারীকে। মঙ্গলবার তারা বিয়েও করেন। বুধবার স্ত্রীকে নিয়ে শ্বশুরবাড়ি ওঠেন হৃদয়। রাতে কৌশলে শ্বশুরবাড়ি থেকে স্বর্ণালংকার, টাকা, মোবাইলসহ

মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে মেহমান আসবে বলে বাড়ি থেকে বের হয়ে উ’ধা’ও হন হৃদয়। পরে কনের পরিবারের লোকজন তার কোনো খোঁ’জ পাননি। স্বর্ণালংকারের মূল্য আনুমানিক ১ লাখ ২০ হাজার টাকা বলে জানিয়েছে ভু’ক্তভো’গীর পরিবার। ঘটনার শিকার রোকেয়া আক্তার জানান, হৃদয় তার সঙ্গে প্রেমের অভিনয় করে তাকে বিয়ে করেন। বিয়ের পরদিন হৃদয় কৌশলে ঘরে থাকা টাকা, স্বর্ণালংকার, মোবাইলসহ মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে পালিয়ে যান। রোকেয়া বলেন, আমি ওই প্র’তার’কের বি’চার চাই। শিবচর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মিরাজ হোসেন জানান, ভু’ক্তভো’গী পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ কোনো লিখিত অ’ভিযো’গ দেয়নি। অভি’যো’গ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *