ইসলাম আমাকে অনেক ভুল থেকে রক্ষা করেছে: এ আর রহমান

এ আর রহমানকে মানুষ সূরের জাদুকর হিসেবেই চেনেন। আজ তিনি পা দিলেন ৫৪ বছরে। বহু কষ্টের পর তিনি সাফল্য পেয়েছেন। তবে সঙ্গীতের পাশাপাশি ইসলাম সম্পর্কে

তার মনোভাব ও মতামতও বিভিন্ন ক্ষেত্রে গুরুত্ব পেয়েছে। পরিবারসহ ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন এআর রহমান। আগে তার নাম ছিলো দিলীপ কুমার। ইসলাম ধর্ম গ্রহণ

করলেও তিনি নিজের মতামত অন্য কারও ওপরে কখনও চাপিয়ে দেননি। একবার এক সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, কারোর ওপর কিছু জোর করে চাপিয়ে দেওয়া ঠিক নয়। ইতিহাস আপনার একঘেঁয়ে লাগে বলে, আপনি সন্তানকে অর্থনীতি নিয়ে পড়ার জন্য জোর করতে পারেন না। এটা ব্যক্তিগত পছন্দ। রহমান বলেছিলেন, অনেকেই তাঁকে জিজ্ঞাসা করেন, ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে কি তারা সাফল্য পেয়েছেন?” এ বিষয়ে শিল্পীর বক্তব্য, “বিষয়টা ধর্ম পরিবর্তনের নয়। নিজের অন্তরাত্মাকে খুঁজে পাওয়াটাই মূল। ধর্মগুরু, সুফিগুরুরা আমাকে আর আমার মাকে যা শিখিয়েছেন সেগুলি খুব স্পেশাল। প্রতিটা বিশ্বাসে একটা করে বিশেষ বিষয় থাকে। আমরা এটাকেই বেছে নিয়েছি। এ

আর রহমান মনে করেন, যার যে বিশ্বাসই থাকুক, প্রার্থনা করলে মনের শান্তি মেলে। তবে নিজের ধর্মীয় বিশ্বাস কারও ওপরে তিনি চাপিয়ে দেননি বলেই জানিয়েছেন বার বার। রহমানের মেয়ে খাতিজা একটি ইভেন্টে বোরখা পরার জন্য নেটদুনিয়ায় আলোচিত হয়েছিলেন। অনেক ইসলামবিদ্ধেষীরা তখন তার সমালোচনাও করেছিলেন। এই প্রসঙ্গে তখন আর রহমান বলেছিলেন, পুরুষদের জন্য বোরখা নয়। না হলে আমিও বোরখা পরতাম সম্ভব হলে। আমার মনে হয় ও (খাতিজা) নিজের মতো করে স্বাধীন। আমাদের বাড়ির পরিচারিকার মায়ের মৃত্যু হলে তাঁর শেষকৃত্যে ও যায়। ওর এই সারল্য ও সামাজিকতা আমি ভালোবাসি। এই বিখ্যাত সঙ্গীতজ্ঞ আরো বলেন, ‘ইসলাম আমাকে অনেক ভুল থেকে রক্ষা করেছে কারণ প্রত্যেক সালাতের পরে আমার মনে আসে যে, আমাকে পরবর্তী সালাতও আদায় করতে হবে আর এভাবেই আমি ক্ষতিকর আচরণ থেকে বেঁচে থাকি।’সূত্র: নিউজ ১৮, বাংলা হিন্দুস্তান

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *