এবার নরওয়েতে ১০ হাজার কোরআন বিতরণের ঘোষণা মুসলিমদের

কোরআনের ব্যাপারে মানুষের ভুল ধারণা ভাঙতে অমুসলিমদের মধ্যে কোরআন বিতরণের উদ্যোগ নিয়েছে নরওয়ের মুসলিমরা। স্থানীয় তিনটি মুসলিম সংস্থা এই প্রকল্পের

ঘোষণা দিয়েছে। তারা বলছে, রাজধানী অসলোসহ নরওয়ের বিভিন্ন শহরে স্থানীয় ভাষায় অনূদিত ১০ হাজার কোরআনের কপি বিতরণ করা হবে। দ্য নরওয়েজিয়ান মুসলিম

আর্ট অ্যান্ড কালচার অ্যাসোসিয়েশন, দ্য ইসলামিক লিটারেচার অ্যাসোসিয়েশন ও মিনহাজুল কোরআন মস্ক ইন অসলো যৌথভাবে এই প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে। মিনহাজুল কোরআন মসজিদের বোর্ড-মেম্বার হামজা আনসারি বলেন, ‘আমি বিশ্বাস করি, বহু মানুষ কোরআন ও মুসলিম ধর্মবিশ্বাসের ব্যাপারে আগ্রহী। এই প্রকল্প কোরআনের

ব্যাপারে মানুষের ভুল ধারণা ভাঙতে সাহায্য করবে। কেননা কোরআনে শিক্ষা হলো, মানুষকে ভালোবাসো এবং জ্ঞানের কথা বলো।’ সম্প্রতি নরওয়ের ইসলামবিদ্বেষী দল ‘দ্য অর্গানাইজেশন স্টপ ইসলামাইজেশন অব নরওয়ে’ (এসআইএএন)-এর এক সভায় কোরআনে অগ্নিসংযোগের চেষ্টা হয়। এই ঘটনার পর নরওয়ের মুসলিমরা ইসলাম সম্পর্কে ভুল ধারণা ভাঙতে বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। কোরআন বিতরণের আগে তারা মানুষের মধ্যে ফুল বিতরণ করে এবং পার্কে কোরআন তিলাওয়াত বাজায়। নরওয়ের অনেক অমুসলিমকে এসব উদ্যোগে অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়। উল্লেখ্য, নরওয়ের মোট জনসংখ্যার ৫.৭ শতাংশ মুসলিম এবং ২০১৩ সালে নরওয়ের ভাষায় প্রথম কোরআনের পূর্ণাঙ্গ অনুবাদ প্রকাশিত হয়।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *