ভারতের উপহারের টিকা এলো বিশেষ বিমানে

ফলে চলতি মাসেই শুরু হচ্ছে টিকাদান কর্মসূচি। প্রয়োগের প্রথম দিন রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের ২৫ জনকে দেওয়া হবে এ

ভ্যাকসিন। পরদিন দেওয়া হবে আরও ৫০০ জনকে। তাদের কিছুদিন নজরদারিতে রাখার পর ফেব্রুয়ারির প্রথম দিকে পুরোদমে শুরু হবে

টিকাদান কর্মসূচি। তবে সুরক্ষা অ্যাপে নিবন্ধন ছাড়া কোনোভাবেই ভ্যাকসিনেশনের আওতায় আসা যাবে না। এদিকে বুধবার (২০ জানুয়ারি) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে সংবাদ সম্মেলন হয়। সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্যসচিব মো. আবদুল মান্নান জানান, চলতি মাসেই কুর্মিটোলায় হাসপাতালে ফ্রন্টলাইনারসহ ২৫ জনকে দিয়েই শুরু হবে কার্যক্রম। পরদিন তিনটি হাসপাতালে থেকে দেওয়া হবে আরও চার থেকে

৫০০ জনকে। এদের কয়েক দিন নজরদারিতে রেখে শুরু হবে মূল কার্যক্রম। প্রথম মাসে ৬০ লাখ ডোজ দ্বিতীয় মাসে ৫০ লাখ আবার তৃতীয় মাসে প্রথম মাসের প্রথমবারে যারা নিয়েছেন সেই ৬০ লাখ পাবেন দ্বিতীয় ডোজ। সরকারি হাপাতালের বাইরে দেওয়া হবে না ভ্যাকসিন। অ্যাপ ছাড়া ভ্যাকসিনেশনের আওতায় আসা সম্ভব না। তবে প্রতিরোধক্ষমতা বা অ্যান্টিবডি কত দিন থাকবে সেটা নিশ্চিত করা সম্ভব না বলে জানান তিনি। জানানো হয় ভ্যাকসিন নেওয়া সবাই টেলিমিসিনের আওতায় থাকবে। প্রতিদিন ভ্যাকসিন বুলেটিন প্রচার করা হবে বলে সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *