নিজ ধর্মকে ভালোভাবে না জানার কারণে ফেতনা-ফাসাদ সৃষ্টি হচ্ছে: ধর্মমন্ত্রী

ধর্মমন্ত্রী মুহা. ফরিদুল হক খান বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ গড়ার জন্য ধর্ম-বর্ণ, দলমত ও গোষ্ঠী নির্বিশেষে সকলকে সাথে নিয়ে কাজ করতে হবে। ‘প্রতিটি

ধর্মই মানুষের কল্যাণের কথা বলে ও শান্তির বার্তা শোনায়। সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদীর কার্যক্রম কোনো ধর্মই সমর্থন করে না। এটি মানবতাবিরোধী অপরাধ। নিজের ধর্মকে

ভালোভাবে না জানার কারণে মাঠপর্যায়ে ফেতনা-ফাসাদ সৃষ্টি হচ্ছে। দৃষ্টিভঙ্গির সমস্যার কারণে কতিপয় গোষ্ঠী ধর্মের অপব্যাখ্যা দিচ্ছে।’ সোমবার (২৫ জানুয়ারি) বিকেলে ময়মনসিংহ নগরীর অ্যাডভোকেট তারেক স্মৃতি মিলনায়তনে এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। ইসলামিক ফাউন্ডেশন ময়মনসিংহ বিভাগীয় কার্যালয়ের উদ্যোগে

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটি কর্তৃক গৃহীত কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নের অংশ হিসেবে বিভাগীয় শহরে ‘জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও কর্ম এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় তার অবদান’ শীর্ষক এ আলোচনা সভা হয়। ময়মনসিংহ বিভাগীয় কমিশনার মুহা. কামরুল হাসানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের মেয়র মুহা. ইকরামুল হক টিটু, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক আনিস মাহমুদ, রেঞ্জ ডিআইজি ব্যারিস্টার মুহা. হারুন অর রশিদ, জেলা প্রশাসক মিজানুর রহমান, জেলা পুলিশ সুপার মুহা. আহমার উজ্জামান।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *