বাবার কোলে বাড়ি ফিরল মেয়ে হওয়ায় রাস্তায় ফেলে দেওয়া সেই শিশু

অবশেষে বাবার কোলে করে বাড়ি ফিরেছে সেই শিশু। গত বৃহস্পতিবার রাতে রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে মেয়েকে নিয়ে গেছেন প্রদীপ বিশ্বাস। এ সময়

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আরশাদ হোসেন এবং আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. নাজমুল হোসাইন উপস্থিত ছিলেন। জানা যায়,

দিনাজপুরের পার্বতীপুরের রঘুনাথপুর বানিয়াপাড়ার প্রদীপ ও পল্লবী দম্প’তির দুটি মেয়ে আছে। তাঁদের আশা ছিল, তৃতীয় সন্তান ছেলে হবে। কিন্তু বুধবার রাতে বদরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আবারও মেয়েসন্তানের জ’ন্ম দেন পল্লবী। একপর্যায়ে তিনি ও তাঁর স্বামী মেয়েকে ফে’লে পা’লি’য়ে যান। শেষে শিশুটিকে উ”দ্ধা’র করে নিজ

বাড়িতে নিয়ে যান স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিচ্ছন্নতাকর্মী জোবেদা বেগম। এ নিয়ে পরদিন বৃহস্পতিবার কালের কণ্ঠে ‘মেয়ে হওয়ায় ফে’লে গে’লেন মা-বাবা’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হয়। অন্যদিকে আ’ইনি জ’টিলতায় পড়ার আ’শ”ঙ্কায় সেদিনই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসে মেয়েকে ফেরত নেওয়ার চে’ষ্টা করেন প্রদীপ। এ অবস্থায় কর্তৃপক্ষ শিশুটিকে ‘উ”দ্ধা’র’ করে বাবার কোলে তুলে দেন। পরে মেয়েকে নিয়ে বাড়ি যান প্রদীপ। গতকাল শুক্রবার মোবাইল ফোনে শিশুটির দাদি আরতী রানী বলেন, ‘অ’ভাবের কারণে বাচ্চাটাকে অন্যের কাছে দিতে চেয়েছিল। এটা আমার ছেলের ভু’ল ছিল। এখন শিশুটি সুস্থ ও স্বাভাবিক আছে। ক”ষ্ট হলেও আমরা ওকে বড় করে তুলব।’

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *