‘আমি বিজেপিতে যোগ দিয়েছি, তবে দিদির বিরুদ্ধে কিছু বলবো না’

ভারতের ক্ষমতাসীন বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের আলোচিত অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত। কৈলাস বিজয়বর্গীয়, মুকুল রায়ের উপস্থিতিতে বিজেপিতে যোগ দেন তিনি।

বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত। তবে তিনি তৃণমূল কংগ্রে'সের মুখ্যমন্ত্রী মমতার বিরুদ্ধে কিছু বলবেন না বলে জানান তিনি।

এ প্রসঙ্গে অভিনেতা যশ বলেন, ”আমি বিজেপিতে যোগ দিতে পারি। তবে দিদি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে কিছু বলব না। আমি আজও দিদিকে বলেছি, এই লড়াইয়ে আমায় আশীর্বাদ করার জন্য।” তার এই মন্তব্য নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হয়েছে। এদিকে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে দেখা করেছেন সদ্য যশ দাশগুপ্ত। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কলকাতায় আসার পর তার সঙ্গে দেখা করেন টলিউডের এই অভিনেতা। বুধবার বিজেপিতে যোগ দেন যশ দাশগুপ্ত। যশের পাশাপাশি বিজেপিতে যোগ

দেন টলিপাড়ার একঝাঁক কলাকুশলী। কৈলাস বিজয়বর্গীয়, স্বপন দাশগুপ্ত, মুকুল রায়ের উপস্থিতিতে বিজেপিতে যোগ দেন যশ। যশের পাশাপাশি সৌমিলি বিশ্বাস, পাপিয়া অধিকারী, রূপা ভট্টাচার্যসহ একঝাঁক কলা কুশলী বিজেপিতে যোগ দেন। বিজেপিতে যোগ দিয়ে যশ বলেন, ‘সিস্টেমের ভিতরে থেকে পরিবর্তন আনতে চাই। এই সিদ্ধান্ত হঠাৎ করে নিইনি। আমার মূল লক্ষ্য যুবকরা। বিজেপি যুবকদের ওপর বিশ্বাস রেখেছে। যুবকরাই পরিবর্তন আনতে পারে। আমি যুবদের উন্নতির জন্য আমরা অনেকে রাজনীতি মানেই খারাপ ভাবি। আমাদের সমাজে ছোটছোট ক্ষেত্রেও রাজনীতি হয়। তবে রাজনীতির আসল মানে পরিবর্তন।’ ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনের আগে যশ দাশগুপ্ত বিজেপিতে যোগ দেওয়ায় তাকে শুভেচ্ছা জানান দেব। রাজনীতির জগতে যশকে স্বাগত বলে টুইট করেন দেব। কোন পার্টিতে যোগ দিলেন যশ, তিনি তা বিচার করেন না। রাজনীতির জগতে দেবের শুভেচ্ছা সব সময় যশের সঙ্গে রয়েছে বলে বন্ধুকে জানান দেব। দেবের শুভেচ্ছা পেয়ে পালটা টুইট করেন যশ। দেবকে ধন্যবাদ জানিয়ে যশ জানান, তাদের মতাদর্শ পৃথক হতেই পারে কিন্তু মানুষের সেবা করাই তাদের একমাত্র লক্ষ্য। যশ দাশগুপ্তের পর বিজেপিতে যোগ দেন অভিনেতা হিরণ। বৃহস্পতিবার নামখানায় অমিত শাহের সভায় আনুষ্ঠানিকভাবে বিজেপিতে যোগ দেন এই অভিনেতা। বিজেপিতে যোগ দিয়ে হিরণ বলেন, ‘আমি সাধারণ ঘরের ছেলে। সাধারণের দুঃখ কষ্ট বুঝি। আর রাজনীতি সমাজ এবং সিস্টেম পরিবর্তনের বিরাট বড় হাতিয়ার। হাতে ক্ষমতা না থাকলে ক্ষমতার অপপ্রয়োগ আটকানো যাবে না।’

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *