ওমরার নতুন ব্যবস্থাপনা ঘোষণা করেছে সৌদি সরকার; ছোঁয়া যাবে না হাজরে আসওয়াদ

করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে গত ছয় মাস স্থগিত থাকার পর মঙ্গলবার (২৯ সেপ্টেম্বর) ওমরার নতুন ব্যবস্থাপনা ঘোষণা করেছে সৌদি সরকার। এতে বলা হয়েছে, কোভিড -১৯ পদক্ষেপের অংশ হিসেবে কাবা এবং

হাজরে আসওয়াদের (পবিত্র কালো পাথর) চারপাশে স্থাপন করা ব্যারিকেডটি তার জায়গায় থাকবে এবং দর্শনার্থীরা সেটা স্পর্শ করতে পারবেন না। মসজিদুল হারাম দিনে ১০ বার জীবাণুমুক্ত করা হবে। দর্শনার্থীদের মধ্যে যদের মধ্যে কোভিড-১৯ এর লক্ষন দেখা যাবে তাদেরকে রাখার জন্য ইতিমধ্যে পৃথক ঘর প্রস্তুত করা হয়েছ। আগামী ৪ অক্টোবর সৌদি এবং বিদেশী বাসিন্দাদের জন্য মসজিদ আল হারাম বা গ্র্যান্ড মসজিদে তার ধারণ ক্ষমতার

৩০% বা ৬০০০ জন লোককে প্রতিদিন ওমরাহ পালন করার অনুমতি দেওয়া হবে। এদিকে, ১৮ অক্টোবর পর্যন্ত মদীনার মসজিদে নববীতে প্রতিদিন ১৫০০০ জনকে ওমরাহ ও নামাজ পড়ার অনুমতি দেওয়া হবে। আগামী ১ নভেম্বর স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক উভয় প্রকার লোকজনের জন্য মসজিদুল হারাম এবং মসজিদে নববীকে কোভিড -১৯ প্রতিরক্ষামূলক ব্যবস্থা গ্রহণপূর্বক পুরোপুরিভাবে উন্মুক্ত করা হবে। প্রসঙ্গত, সৌদি আরব গত সপ্তাহে ঘোষণা করেছিল যে আগামী মাসের শুরুতে ওমরাহ পালনের জন্য ধীরে ধীরে করোনভাইরাস সম্পর্কিত ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নেবে।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *