যাত্রীর ফেলে যাওয়া জমি বিক্রির ২০ লাখ টাকা ফেরত দিল দোয়েল পরিবহন

জমি বিক্রি করার ২০ লাখ টাকা নিয়ে চাঁদপুরের গনি আমিন নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের মেঘনা শিল্পাঞ্চলে যাওয়ার উদ্দেশে ঢাকার গুলিস্তান থেকে দোয়েল পরিবহনে উঠেন।

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মেঘনা থেকে গুলিস্তান রুটে চলাচলকারী দোয়েল পরিবহনটি যাত্রীর গন্তব্য মেঘনা কাউন্টারে আসলে তিনি টাকার ব্যাগ রেখে চলে যান। পরে

কাউন্টারের সুপার ভাইজার, চালক ও সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগীতায় ৭ মার্চ রবিবার বিকেলে যাত্রীর পুরো টাকা ফিরিয়ে দিয়েছেন দোয়েল কর্তৃপক্ষ। চাঁদপুরের মতলব উত্তর ছেঙ্গারচর পৌরসভার গনি আমিন বলেন, ২০ লাখ টাকা ভর্তি ব্যাগ রেখে নামার পরপরই ব্যাগের কথা মনে পরে ততক্ষণে দোয়েল পরিবহনের গাড়িটি চলে যায়। আমরা সঙ্গে সঙ্গে মেঘনা কাউন্টারে গিয়ে সুপারভাইজারকে টাকা খোয়ানোর বিষয় বলি। গাড়ির নম্বর না জানায় কখন গাড়িটি গুলিস্তান থেকে ছেড়ে আসে তা জানাতেই আমাদের

চা-নাস্তার ব্যবস্থা করে তারা গাড়িতে তল্লাশি করে টাকার ব্যাগের সন্ধান পায়। পরে আমি আমার পৌরসভার মেয়র, কমিশনারের মাধ্যমে টাকার মালিকানাসত্ত্বেও প্রমাণ দিলে তারা আমাকে সসম্মানে তা ফিরিয়ে দেয়। এ টাকা ফিরিয়ে দিয়ে আমাদের পুরো পরিবারকে মারাত্মক ক্ষতি থোকে বাঁচিয়ে দিয়েছে। টাকা পেয়ে আমি আনন্দে কেঁদে ফেলি। এর বিনিময়ে তাদের এক কাপ চা পর্যন্ত খাওয়াতে পারি নাই। উল্টো তারাই আমাদের খাওয়া-দাওয়া ও গাড়িভাড়া পর্যন্ত দিয়েছে। দোয়েল পরিবহনের চেয়ারম্যান আব্দুস ছাত্তার প্রধান ও এমডি গোলজার ভূইয়া জানান, যাত্রীর ফেলে যাওয়া আমানত ফেরত দিতে পেরে আমরা আনন্দিত। এর আগেও অনেক যাত্রীর টাকা ও মূল্যবান জিনিসপত্র পেয়ে যাত্রীর হাতে তুলে দিয়েছি। তারা বলেন, আমাদের দোয়েল পরিবারের জন্য আপনারা মন খুলে দোয়া করবেন আমরা যেন সততার সঙ্গে যাত্রীসেবা দিতে পারি।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *