যে কারণে সাকিবের মহৎ কাজের খবর জানা গেল এক বছর পর!

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান তার নানাবাড়ি এলাকায় একটি মসজিদ নির্মাণ করেছেন প্রায় এক বছর হলো। গত বছরের এপ্রিলে মসজিদটি উদ্বোধন করা হয়।

এরপর থেকে সেখানে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা নিয়মিত নামাজ আদায় করছেন। কিন্তু সাকিবের মসজিদ নির্মাণের খবর এতদিন গণমাধ্যমে প্রকাশ হয়নি। মসজিদ তৈরি করে দেওয়ার

মতো এমন মহৎ কাজের প্রচার সাকিব নিজেই করতে চাননি বলে জানা গেছে। স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মাগুরায় জন্ম নেওয়া সাকিব একই জেলার আলোকদিয়ার বারাশিয়ায় নানার বাড়ি এলাকায় একটি মসজিদ নির্মাণ করেছেন। বারাশিয়া পূর্বপাড়া জামে মসজিদটি নির্মাণে প্রায় ৩৫ লাখ টাকার মতো খরচ হয়েছে। একতলা বিশিষ্ট ওই

মসজিদের ভেতরে ছয়টি কাতার করা হয়েছে। প্রতি কাতারে ৪০ জনের মতো মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারেন। মসজিদটিতে ইমাম হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন মুফতি মো. আতিক উল্লাহ। যোগাযোগ করা হলে তিনি যুগান্তরকে বলেন, মসজিদটি উদ্বোধনের পর থেকে তিনি ইমামতি করছেন। নানাবাড়ি এলাকায় সাকিবের এ মহৎ কাজে এলাকাবাসী খুবই খুশি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে সাকিবের ছোট মামা স্থানীয় একটি মাদ্রাসার শিক্ষক বাবলুর রহমান যুগান্তরকে বলেন, সাকিব নিজের অর্থায়নে এখানে একটি মসজিদ নির্মাণ করেছে। তবে কাজটি মহৎ হওয়ায় সে প্রচার করতে আগ্রহ প্রকাশ করেনি। তাই আমরাও এ বিষয়ে এতদিন কোনো কথা বলিনি।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *