ম্যাচ হারের পেছনে যে কারণ দেখছেন তামিম

মাকসুম আলম খান আপডেট ২৪-০৩-২০২১, ০৫:১০ ম্যাচ হারের পেছনে যে কারণ দেখছেন তামিম ম্যাচ হারের পেছনে যে কারণ দেখছেন

তামিম ম্যাচ হারের পরও, কি কি ভুলভ্রান্তি বা ইতিবাচক দিক ছিলো- সেসব নিয়ে কথা বলতে বলতে ক্লান্ত তামিম ইকবাল। ক্রাইস্টচার্চে

নিজেদের ব্যর্থতায় চরম হতাশ বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক। দলীয় সংগ্রহ নিয়ে সন্তুষ্ট হলেও, বাজে ফিল্ডিংয়ের কারণেই ম্যাচ হারতে হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তামিম। মঙ্গলবার (২৩ মার্চ) ম্যাচ শেষে ফেসবুক লাইভে এসে এমন মন্তব্য করেন তামিম ইকবাল। দু’এক বছরেই হাঁপিয়ে উঠেছেন তামিম ইকবাল। অধিনায়ক বলেই তো যেকোনো পরিস্থিতিতে গণমাধ্যমের সামনে এসে দলের হয়ে ব্যাখ্যা দিতে হয়। বাংলাদেশ

দলের অধিনায়ক তামিম ইকবাল বলেন, ‘বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল অনেক কিছু ইতিবাচক আছে, উন্নতির জায়গা আছে- যে’ই ক্যাপ্টেন থাকুক, এসব বলতে বলতে ক্লান্তিকর হয়ে যাচ্ছে।’ হাঁপিয়ে উঠেছেন সমর্থকরাও। কখনও ডানেডিনের মতো বাজে হার দেখে, কখনও বা ক্রাইস্টচার্চের মতো আফসোসের। ক্যাপ্টেনের কথা কি তাদের যন্ত্রণা মেটাতে পারবে? তামিম ইকবাল বলেন, ‘বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল এটা তিনশ’ রানের উইকেট ছিলোনা। ২৭০-২৭৫ রানের উইকেট ছিলো। আমার কাছে মনে হয়, ব্যাটিংয়ে যতোটুকু আশা করেছিলাম, তা

করতে পেরেছি। তবে, আমরা এখানে ইম্প্রুভমেন্টের জন্য আসিনি। ম্যাচ জিততে এসেছি। এর চেয়ে ভালো সুযোগ আর পাইনি। এটা অবশ্যই জেতা উচিত ছিলো। ক্যাচগুলো যদি ধরতে পারতাম, খেলাটা জেতা সম্ভব ছিলো। খুবই হতাশ যে এমন ম্যাচ আমরা জিততে পারিনি।’ ১৩১ রানে অলআউট হওয়ার পরের ম্যাচে ২৭১। প্রতিদ্বন্দ্বিতা তৈরির কৃতিত্ব দাবি করতে পারেন টাইগার ব্যাটসম্যানরা। বিশেষ করে মোহাম্মদ মিঠুন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাকে নিয়ে যে ব্যাঙ্গ কম হয়নি। তাই ৫৭ বলে ৭৩ রানের ইনিংস খেলার পর প্রশংসা তো পেতেই পারেন। মোহাম্মদ মিঠুন বলেন, ‘বাংলাদেশ জাতীয় দল নিজের ব্যাটিং নিয়ে আমি সন্তুষ্ট। ক্রিজে থাকার চেষ্টা করেছি। বলের ধরন বুঝে খেলার চেষ্টা

করেছি। ডানেডিনে ম্যাচটা ভালো ছিলোনা। সবাই সেটা ভুলে সিরিজে ফেরার সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছে। ২৭১ ভালো সংগ্রহ ছিলো। উইকেটটাও ভালো ছিলো।’

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *