‘নিখোঁজ’ বিষয়ে যা জানালেন অভিনেতা শামীম

ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা শামীম আহমেদ জানিয়েছেন, তিনি নিখোঁজ হননি। তার মোবাইল ফোন হারিয়ে গিয়েছিল শুধু। তিনদিন

‘নিখোঁজ’ ছিলেন শামীম আহমেদ। তার মোবাইল ফোন নাম্বারটিও বন্ধ পাওয়া যাচ্ছিল। বিচলিত হয়ে গত ২২ মার্চ রাজধানীর মালিবাগ থানায়

সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করতে গিয়েছিলেন শামীমের স্ত্রী আশামনি। শামীমের ‘নিখোঁজ’-এর বিষয়ে গত ২২ মার্চ গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের
পর এইদিন রাতেই তার হদিস মেলে। তিনি নিজেই স্ত্রীকে ফোন করে জানান, সুস্থ আছেন এবং গাজীপুরের শুটিং শেষ করে বাসায় ফিরবেন। এদিকে এ অভিনেতার ‘নিখোঁজ’ প্রশ্নে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। তার বিরুদ্ধে স্ত্রী-সন্তানদের সময় না দেওয়ার অভিযোগ করেছেন শাশুড়ি নাজম

বেগম। মাঝেমধ্যে শামীম নাকি এভাবেই উধাও হয়ে যায়। নাজমা বেগম জানান, তারা শুনেছেন তিনদিন পর ঢাকায় ফিরে বাসায় না এসে ফের সিলেটে গেছেন শামীম। এমন ধূম্রজালের মধ্যেই শামীম জানালেন, তিনি আসলে নিখোঁজ-ই হননি। শুধু মোবাইল ফোন হারিয়েছিল তার। বর্তমানে সিলেটে নয়, গাজীপুরেই শুটিংয়ে ব্যস্ত আছেন। এ বিষয়ে সত্যতা নিশ্চিত করতে এক গণমাধ্যমে শুটিং স্পট থেকে নিজের ছবি পাঠিয়েছেন এবং সংবাদকর্মীদের সঙ্গে ভিডিওকলেও কথা বলেছেন। শামীম আহমেদ মঙ্গলবার ওই গণমাধ্যমকে বলেন, ‘গত সপ্তাহে আমি

গাজীপুরে দুইদিন শুটিং করে সিলেটের শ্রীমঙ্গলে অন্য আরেকটি শুটিংয়ে যাই। সেখান থেকে ঢাকায় ফেরার পথে আমার ফোন ছিনতাই হয়। তাই কারো সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারিনি। সিমটাও তুলতে পারিনি। এরপর সিলেট থেকে আব্দুল্লাহপুর হয়ে টঙ্গীতে আসি। এখন টঙ্গীতে একটি ইউটিউব চ্যানেলের শুটিংয়ে রয়েছি। আমি একেবারে সুস্থ এবং স্বাভাবিক আছি। আসলে আমি না, আমার ফোন হারিয়েছে। ’ তিনি আরও

বলেন, ‘বাসায় আমার স্ত্রীর সঙ্গে কথা হয়েছে। আজই (মঙ্গলবার) শুটিং শেষ করে বাসায় ফিরব।’ এর আগে গত সোমবার শামীম আহমেদের স্ত্রী আশামনি জানিয়েছিলেন, ১৯ মার্চ রাতে শামীমের ফোনে সঙ্গে সর্বশেষ কথা হয় তার। তখন শামীম জানিয়েছিলেন, তিনি সিলেট থেকে বাসে করে ঢাকায় ফিরছেন। বাসে তার পাশের সিটে থাকা যাত্রীর ফোন থেকে কল দিয়েছেন। এরপর থেকে আর শামীমের সঙ্গে পরিবারের যোগাযোগ ছিল না। আত্মীয়-স্বজন এবং শামীমের বন্ধুসহ সবার বাসায় খোঁজ করে তাকে না পাওয়ায় রাজধানীর মালিবাগ থানায় জিডি করতে

যান আশামনি। ঘটনাটি সিলেটের বলে থানা জিডি নেয়নি। সিলেটের কোনো থানায় জিডি করতে বলা হয়। কমেডি চরিত্রে টিভি নাটকে অভিনয় করে দারুণ জনপ্রিয় শামীম আহমেদ। তার অভিনয়ে পথচলার ১৯৯৯ সালে ‘বন্ধন’ ধারাবাহিক দিয়ে। অভিনেত্রী আফসানা মিমির আগ্রহেই মহিলা সমিতির পিওন শামীম হয়ে উঠেছেন অভিনেতা। নাটকটির প্রোডাকশন ম্যানেজার ছিলেন তিনি। এক সময় অভাবের কারণে এই অভিনেতা রিকশা চালিয়েছেন, করেছেন কুলির কাজও। বর্তমানে ইউটিউব কনটেন্টেই বেশি কাজ করেন এই অভিনেতা।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *