মামুনুল হক-বাবুনগরীকে মাঠে নামতে বললেন শিশুবক্তা রফিকুল

মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানীকে ছেড়ে দিয়েছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়। থানা থেকে বেরিয়ে গাড়িতে

চড়েই ফেসবুক লাইভে এসে তাকে ছেড়ে দেয়ার বিষয়টি ভক্তদের জানান রফিকুল ইসলাম। লাইভে রফিকুল ইসলাম মাদানি বলেন,

‘আলহামদুলিল্লাহ! পুলিশ আমাকে থানায় নেয়ার পর কিছুক্ষণ রেখে ছেড়ে দিয়েছে। যারা আমার আটকের পর প্রতিবাদ জানিয়েছেন এবং খোঁজ-খবর নিয়েছেন, তাদের ধন্যবাদ। ইসলামবিরোধী সব কর্মকাণ্ডের প্রতিবাদে আগামীতেও আমি সাধারণ মানুষের সঙ্গে থাকব।’ এরপর বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় ফেসবুকে আরেকটি পোস্ট দেন যেখানে তিনি হেফাজত নেতা বাবুনগরী ও মামুনুলকে মাঠে নামার আহবান জানান।

রফিকুল ইসলাম বলেনব, আমার মুক্তির আত্মতৃপ্তিতে মূল বিষয় কেউ ভুলে যাবেন না,আমি আল্লামা বাবুনগরী আল্লামা মামুনুল হক্ব মুফতি ফয়জুল করীম দাঃ বাঃ কে বলব আপনারা ডাক দিন প্রয়োজনে এদেশের জনগণ আপনাদের ডাকে এয়ারপোর্ট ঘেরাও করবে, তবুও মোদি আসতে পারবে না, কথা দিচ্ছি এয়ারপোর্ট পর্যন্ত আপনাদের ডাকে আমি অধম শহীদ হওয়ার জন্যও প্রস্তুত আছি।’ এর আগে দুপুর ১২টার দিকে মতিঝিল শাপলা চত্বরে ছাত্র অধিকার পরিষদ মিছিল বের করলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ হয়। আধঘণ্টা ধরে চলা এ সংঘর্ষে বেশ

কয়েকজন আহত হন। এসময় শিশুবক্তা রফিকুল ইসলামসহ ১১ জনকে আটক করে পুলিশ। আটকদের প্রিজনভ্যানে নিয়ে যাওয়ার সময় নুরুজ্জামান নামের একজনের ফেসবুক আইডি থেকে লাইভে আসেন মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানী। ‘মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানী সমর্থক’ নামের একটি ফেসবুক গ্রুপে লাইভটি শেয়ার করা হয়। প্রিজনভ্যান থেকে মাত্র ২৯ সেকেন্ডের ওই লাইভে রফিকুল ইসলাম মাদানী বলেন, ‘আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমতুল্লাহ, সম্মানিত দেশবাসী আপনারা দেখতে পাচ্ছেন আমাদের পুলিশ প্রিজনভ্যানে নিয়ে এসেছে। এই

যে আমাদের আরও কিছু ভাই। আমরা বলবো, আমরা আসলে দেশের বিরুদ্ধে না, ইসলামের বিরুদ্ধে না, আমাদের পুলিশ ভাইয়েরা আহত করেছে, আঘাত করেছে, আমরা তাদের বলবো আমাদের আঘাত করা আর দেশকে আঘাত করা একই কথা। আমরা ইসলামবিরোধী না দেশবিরোধী না, আমরা মোদির বিরুদ্ধে।’ মাওলানা রফিকুল ইসলাম মাদানী রাজধানীর জামিয়া মাদানীয়া বারিধারা মাদরাসায় লেখাপড়া করেন। শারীরিক আকৃতিতে ছোট হওয়ায় তাকে সবাই শিশুবক্তা বলেন এবং এ হিসেবেই পরিচিতি পান তিনি। নেত্রকোনা জেলার পশ্চিম বিলাশপুর

সাওতুল হেরা মাদরাসার পরিচালক রফিকুল ইসলাম ২০ দলীয় জোটভুক্ত জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম ও রাবেতাতুল ওয়ায়েজিনের সঙ্গে যুক্ত আছেন বলেও জানা গেছে।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *