ঘরে ঘরে করোনা রোগী, তবুও টনক নড়ছে না মানুষের

ঘরে ঘরে করোনা রোগী, হাসপাতালে নেই তিল ধারণের ঠাঁই। তারপরও সাধারণ মানুষের টনক নড়ছে না। লকডাউনের ঘোষণায় হিড়িক পড়েছে

রাজধানী ছাড়ার। স্বাস্থ্যবিধির কোনো তোয়াক্কা না করেই ফিরছেন গ্রামে। এতে ঢাকার বাইরেও সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার শঙ্কা বাড়ছে। রাজধানীর

সদরঘাট, বাস টার্মিনাল, রেলস্টেশনে উপচে পড়া ভিড়। উধাও অর্ধেক আসনে যাত্রী নেয়ার নির্দেশনাও। হাতে সময় কম। সোমবার থেকে বন্ধ সব গণপরিবহন। তাই যেভাবেই হোক ছাড়তে হবে ঢাকা। সদরঘাট লঞ্চ টার্মিনালে যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড়। কোথাও নেই স্বাস্থ্যবিধি মানার বালাই। উধাও অর্ধেক আসনে যাত্রী নেয়ার নির্দেশনা, যে যেভাবে পারছেন জায়গা করে নিচ্ছেন লঞ্চে। বিমানবন্দর রেলস্টেশনেও দেখা যায় একই চিত্র। টিকিট সংকটে শেষ পর্যন্ত ঢাকা ছাড়তে পারবেন কিনা তা নিয়ে অনিশ্চয়তা ছিল যাত্রীদের মাঝে। তাইতো করোনা ভয় তুচ্ছ করে

হলেও উঠতে হবে ট্রেনে। অনেকের মুখেই ছিল না মাস্ক। ছিল না সামাজিক দূরত্বও। গাবতলী বাস টার্মিনালে ছিল টিকিটের জন্য হাহাকার। লকডাউন সাতদিন পর আরও দীর্ঘ হবার আতঙ্কে অনেককেই দেখা যায় সপরিবারে ঢাকা ছাড়তে। লকডাউনের ঘোষণায় যারা গণহারে ঢাকা ছাড়ছেন তাদের মধ্যে বেশিরভাগই নিম্নআয়ের মানুষ। যানবাহন না পেয়ে বিভিন্ন স্থানে ট্রাকে করেও দেখা যায় অনেককে রাজধানী ছাড়তে।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *