শিরিনের নতুন রেকর্ড, নাঈমের স্বর্ণ

বঙ্গবন্ধু ৯ম বাংলাদেশ গেমসে মেয়েদের ২০০ মিটার স্প্রিন্টে নতুন রেকর্ড গড়েছেন নৌবাহিনীর শিরিন আক্তার। মাত্র ২৪.২০ সেকেন্ড সময়

নিয়ে ভেঙ্গে দিয়েছেন ২০০৬ সালে করা বিউটি আক্তারের গড়া ২৪.৩০ সেকেন্ডের রেকর্ডটি। আর ছেলেদের স্প্রিন্টে ২১.৭০ সেকেন্ড সময়

নিয়ে স্বর্ণ জিতেছেন বিমান বাহিনীর নাঈম ইসলাম। মেয়েদের এই ইভেন্টে রূপা জিতেছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শরিফা খাতুন। তিনি সময় নিয়েছেন ২৪.৫০ সেকেন্ড। এছাড়া বাংলাদেশ আনসারের কবিতা রায় ২৫.৯০ সেকেন্ড সময় নিয়ে জয় করেছেন ব্রোঞ্জ পদক। নতুন মাইলফলক রচনার পর শিরিন বলেন, ‘নতুন রেকর্ড গড়ে অনেক ভালো লাগছে। বিউটি আপুর গড়া আগের রেকর্ডটি ভেঙেছি। আসলে আমার

অধ্যবসায় আমাকে এই পর্যন্ত নিয়ে এসেছে। এ নিয়ে টানা তৃতীয়বারের মতো ২০০ মিটার স্প্রিন্টে সোনা জিতলাম।’ ১০০ ও ২০০ মিটারে নিয়মিত সাফল্য পাওয়ার পেছনে রহস্য জানাতে গিয়ে শিরিন বলেন, ‘কারও একার প্রচেষ্টায় সাফল্য আসে না। এজন্য অনেকেরই অবদান আছে। বিওএ, নৌবাহিনী, বিকেএসপি, ফেডারেশন এমনকি সাংবাদিকদের লেখনীও। আমি কঠোর পরিশ্রম করেছি বলেই সাফল্য আসছে। এর

জন্য আমাকে অনেক ত্যাগ স্বীকার করতে হয়েছে। নিজের ফিটনেস ধরে রাখার জন্য আমি ঈদের সময়ও অনুশীলন করে থাকি।’ এদিকে ছেলেদের ২০০ মিটার স্প্রিন্টে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর নাঈম ইসলাম স্বর্ণপদক জয় করেছেন। তিনি দৌড় শেষ করেছেন ২১.৭০ সেকেন্ড সময় নিয়ে। ইভেন্টটিতে রৌপ্য জিতেছেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শরিফুল। তিনি সময় নিয়েছেন ২১.৮০ সেকেন্ড। এছাড়া ২২.২০ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ জিতেছেন সেনাবাহিনীর মোতালেব। ২০০ মিটারে স্বর্ণপদক জিতে নাঈম ইসলাম বলেন, ‘জুনিয়র অ্যাথলেট থাকাকালীন

জহির রায়হান (বর্তমান অ্যাথলেট) আমাকে কোচিং করিয়েছেন। এবার গেমসের শুরুতে ১০০ মিটারে অংশ নিয়ে তৃতীয় হয়েছি।’ শেরপুরের এই সন্তান আরও বলেন, ’ছোটবেলা থেকে অ্যাথলেটিকস খেলতাম। আমার আসলে দৌঁড়াতে ভালো লাগে। অ্যাথলেটিকস আমি উপভোগ করি। তাই এর সঙ্গে আছি। ভবিষ্যতে দেশের হয়ে আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায়ও সাফল্য পেতে চাই।’

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *