‘বরের উচ্চতা ৪০ ইঞ্চি কনের ৪২’

বর আব্বাস মন্ডলের বয়স ৩০ হলেও উচ্চতা ৪০ ইঞ্চি এবং কনের বয়স ১৮ হলেও উচ্চতা ৪২ ইঞ্চি। শুক্রবার (৯ এপ্রিল) রাতে তাদের বিয়ে

হয়েছে। বরের বাড়ি ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার আউশিয়া গ্রামে। কনের বাড়ি একই উপজেলার লক্ষ্মণদিয়া গ্রামে। শারিরীক প্রতিবন্ধী এ

নব দম্পতিকে দেখতে গ্রামের মানুষ ভিড় করছে। কেউ কেউ শুভকামনা জানিয়ে উপঢৌকন দিচ্ছেন। সারাদিনই বরের বাড়িতে গ্রামের মানুষের আসা যাওয়া চলে। সম্পর্কিত খবর ঝিনাইদহে ২৫০ শয্যা হাসপাতালের উদ্বোধন ঝিনাইদহে মাতব্বরদের লঙ্কাকাণ্ড হঠাৎ পকেটে মোবাইল ফোন বিস্ফোরণ, যুবক দগ্ধ বরের বাবা আজিবর মন্ডল খর্বকায় ছেলের জন্য পাত্রী পাচ্ছিলেন না। আবার কনের বাবা ইউনুস আলীও খর্বকায় মেয়ে

মিম খাতুনের জন্য পাত্র খোঁজ করছিলেন। অবশেষে পাত্রের খোঁজ পান। তারপর দু’পক্ষ বসে বিয়ের দিনক্ষণ ঠিক করেন। বরের মা সালেহা বেগম ছেলের বউকে পেয়ে খুশি। তিনি সকলের কাছে নব দম্পতির জন্য দোয়া কামনা করেন। আব্বাস মন্ডলের বাবা আজিবর মণ্ডল জানান, আমরা কৃষক পরিবার অনেকদিন ধরে ছেলের জন্য মেয়ে খুঁজে পাচ্ছিলাম না। অবশেষে শৈলকুপার লক্ষনদিয়া গ্রামে একটি মেয়ে খুঁজে পাওয়া যায়। আমরা জানতে পারি গ্রামের ইউনুস আলীর একটি মেয়ের আছে। পরে বিয়ের পয়গাম পাঠানোর পর রাজি হয় কনের পরিবার। এরপর

আসে সেই মাহেদ্রক্ষণ। শুক্রবার রাতে ছেলে আব্বাস উদ্দীনের সঙ্গে মিমের বিয়ে সম্পন্ন হয়। এই বিয়েতে ১৫ জন বরযাত্রী যায়। শনিবার বিয়ে বাড়ি গিয়ে দেখা যায় বর-কনে পাশাপাশি বসে খোশ মেজাজে গল্প করছেন। তাদের সুখী দাম্পত্য জীবনের জন্য সবার কাছে দোয়া চান আব্বাস মন্ডল ও মিম খাতুন।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *