কোরআন থেকে ২৬টি আয়াত নিষিদ্ধের আবেদন খারিজ জরিমানা

আদালত আবেদনটিকে খারিজ করে উল্টো আবেদনকারীকে ৫০ হাজার রুপি জরিমানা করেন অবিশ্বাসীদের বিরুদ্ধে সহিংসতার অভিযোগ এনে

মুসলিমদের ধর্মীয় গ্রন্থ কোরআন থেকে ২৬টি আয়াত অপসারণের আবেদন খারিজ করে দিয়েছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট।পবিত্র কুরআনের ২৬টি

আয়াত ‘সন্ত্রাসবাদ উস্কে দিচ্ছে’ এমন অভিযোগ তুলে ওই ২৬টি আয়াতকে বাদ দেওয়ার জন্য রিট পিটিশন দায়ের করেছিলেন ভারতের উত্তরপ্রদেশ শিয়া সেন্ট্রাল ওয়াকফ বোর্ডের সাবেক প্রধান ওয়াসিম রিজভী। তবে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট সেই রিট “পুরোপুরি অর্থহীন” বলে খারিজ করে দিয়েছেন। সোমবার (১২ এপ্রিল) বিচারপতি আরএফ নরিমন, বিআর গাওয়াই এবং হৃষীকেশ রয়ের বেঞ্চ আবেদনকারীর রিট

খারিজের পাশাপাশি সৈয়দ ওয়াসিম রিজভিকে ৫০ হাজার রুপি জরিমানাও করেছেন। জরিমানার এই টাকা লিগ্যাল এইড সার্ভিস কর্তৃপক্ষকে দিতে বলা হয়েছে। বিচারপতি নরিমনকে আবেদনটিকে “পুরোপুরি অর্থহীন” বলে সম্বোধন করে আবেদনকারীর কাছে জানতে চেয়েছিলেন, “আপনি কী সত্যিই আবেদনটি করছেন?” তবে রিজভির আইনজীবী সিনিয়র অ্যাডভোকেট আর কে রায়জাদা বলেন, “আমার আবেদন হলো

এই কথাগুলোতে অবিশ্বাসীদের বিরুদ্ধে সহিংসতার উল্লেখ রয়েছে।” তিনি আরও বলেন, “শিক্ষার্থীদের এসব কথায় উদ্বুদ্ধ করা উচিত নয়। তাই এগুলো প্রচার করাও উচিত নয়। আমি এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকেও চিঠি দিয়েছি, কিন্তু কিছুই হয়নি।” 2021/03/dhaka-tribune-770-x-90-1617033614340.gif আবেদনে আরও বলা হয়, ইসলাম সাম্য, ন্যায়তা, ক্ষমা ও সহনশীলতার ধারণাগুলোর উপর ভিত্তি করে হলেও এই মৌলিক নীতিগুলো থেকে দূরে সরে যাচ্ছে এবং আজকাল হিংস্র আচরণ, জঙ্গিবাদ, মৌলবাদ, চরমপন্থা ও সন্ত্রাসবাদ দ্বারা ইসলামকে চিহ্নিত করা হচ্ছে। রিজভী তার পিটিশনে বলেছিলেন, হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)-এর মৃত্যুর পরে তার উপর
v

আল্লাহর বাণী অবতীর্ণ হওয়ার সত্যতা সম্পর্কে বিতর্ক হয়েছিল। খলিফারা কোরআন সংকলনে ভুল করেছিলেন। রিজভী আরও দাবি করেন, অবিশ্বাসী এবং বেসামরিক নাগরিকদের ওপর সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড বৈধতা দিতে এসব আয়াত কুরআনে ঢুকানো হয়েছে। এ বিষয়ে পিটিআইটি জানিয়েছে, এই আবেদনের ফলে বেশ কয়েকটি মুসলিম সংগঠন ও ইসলামী আলেমদের তীব্র প্রতিক্রিয়া প্রকাশ পেয়েছে।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *