খালেদা জিয়ার ফুসফুসে হালকা সংক্রমণ

করোনা আক্রান্ত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার ফুসফুসে খুব হালকা মাত্রার সংক্রমণ রয়েছে বলে জানিয়েছেন তার চিকিৎসকরা।

রাজধানীর এভার কেয়ার হাসপাতালে সিটিস্ক্যান করানো পর এ তথ্য জানানো হয়। বৃহস্পতিবার রাতে বেগম জিয়াকে সিটিস্ক্যানের জন্য এই

হাসপাতালে নেয়া হয়। চিকিৎসকরা জানান, হাসপাতাল নয় বাসাতেই চিকিৎসা চলবে বিএনপি চেয়ারপারসনের। এক বছর ২০ দিন পর গুলশানের বাসভবন ফিরোজা থেকে বের হলেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। করোনা আক্রান্ত বেগম জিয়ার ফুসফুসের সংক্রমণ পরীক্ষার জন্য রাত নয়টার পর নেয়া হয় রাজধানীর এভার কেয়ার হাসপাতালে। হাসপাতালে পৌঁছনোর পর শুরু হয় পরীক্ষা। সিটি স্ক্যান শেষে

রাত পৌনে এগারোটায় হাসপাতাল থেকে গুলশানের বাসায় ফিরে আসেন তিনি। চিকিৎসকরা জানান, স্ক্যান রিপোর্ট অনুযায়ী বেগম খালেদা জিয়ার ফুসফুসে করোনার সংক্রমণ খুবই সামান্য। স্ক্যান রিপোর্ট ভালো হওয়ার আপাতত বাসায় থেকেই চেয়ারপারসনের চিকিৎসা চলবে জানিয়ে খালেদা জিয়ার চিকিৎসক ডা. জেড এম জাহিদ হোসেন বলেন, রিপোর্ট ভালো আসলেও শঙ্কামুক্ত নন চেয়ারপারসন। এর আগে বৃহস্পতিবার দুপুরে খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক দলের প্রধান এফএম সিদ্দিকী ব্রিফিং করে জানান, বেগম খালেদা জিয়ার শারীরিক

অবস্থা স্বাভাবিক এবং রক্ত পরীক্ষার রিপোর্ট ভালো। ১০ এপ্রিল করোনা পরীক্ষার ফল পজিটিভ আসে। গত বছরের ২৫ মার্চ জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর থেকে নিজ বাসাতেই আছেন তিনি।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *