ফ্রান্সের নাগরিকদের পাকিস্তান ছাড়ার পরামর্শ

ফ্রান্সের সব নাগরিক ও কোম্পানিকে আপাতত পাকিস্তান ছেড়ে চলে যেতে বলা হয়েছে। ফ্রান্সবিরোধী চলমান সহিংস বিক্ষোভের মধ্যে

বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) পাকিস্তানে অবস্থিত ফরাসি দূতাবাস এই পরামর্শ দিয়েছে। খবর এএফপি ও বিবিসির। পাকিস্তানে বসবাসরত দেশটির

নাগরিকদের পাঠানো এক ইমেইলে ফরাসি দূতাবাসটি বলছে, পাকিস্তানে ফরাসি স্বার্থের জন্য মারাত্মক হুমকি দেখা দেওয়ায় ফ্রান্সের নাগরিক ও কোম্পানিগুলোকে আপাতত এখান থেকে চলে যেতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। চলমান বাণিজ্যিক বিমানেই তারা পাকিস্তান ছেড়ে চলে যাবেন। এর আগে তেহরিক-ই-লাব্বাইক পাকিস্তান (টিএলপি) নামের একটি দলকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেন পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ। সম্প্রতি

ফরাসিবিরোধী বিক্ষোভের জন্য এই গোষ্ঠীকে দায়ী করা হচ্ছে। এর আগে পাকিস্তান সরকারের কাছে ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে বহিষ্কার দাবি করেছিল এই দলটি। এছাড়া ফরাসি পণ্য বর্জনের ডাক দেয় তারা। টিএলপি নেতা সাদ রিজভীকে আটকের পর পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে লিপ্ত হয় দলটির সমর্থকেরা। বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ জলকামান, কাঁদানে গ্যাস ও রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। হত্যা উসকানি দেওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে রিজভির বিরুদ্ধে। গত নভেম্বরে ফরাসিবিরোধী বিক্ষোভের সময় তিন দিন রাজধানী ইসলামাবাদ অচল করে রেখেছিল টিএলপি

সমর্থকেরা। শেখ রশিদ বলেন, আন্তর্জাতিক পর্যায়ে পাকিস্তান উগ্রপন্থী জাতি হিসেবে পরিচিতি পেতে চায় না। যে কারণে টিএলপিকে বেআইনি ঘোষণা করা হয়েছে। অবশ্য পাকিস্তানের সংখ্যাগরিষ্ঠ সুন্নি মুসলমানরা টিএলপিকে সমর্থন দিচ্ছে। যে কারণে এই নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়ন করা কঠিন হয়ে পড়বে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *