খালেদার অবস্থা আগের চেয়ে ভালো

করোনা আক্রান্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া অনেকটা ভালো অনুভব করছেন বলে জানিয়েছেন তার জন্য গঠিত চিকিৎসক টিমের

অন্যতম সদস্য অধ্যাপক ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন। মঙ্গলবার গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের বাসভবন ফিরোজায় গিয়ে তার শারীরিক

সর্বশেষ অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে সাংবাদিকদের তিনি একথা জানান। সম্পর্কিত খবর শাপলা চত্ত্বরে সমাবেশের আগে খালেদা জিয়ার সঙ্গে বৈঠক করেন বাবুনগরী সুখবর দিলেন খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক করোনামুক্ত হলেন খালেদা জিয়ার বিশেষ সহকারী অধ্যাপক জাহিদ হোসেন জানান, খালেদা জিয়ার করোনা আক্রান্তের ১৩ তম দিন চলছে। বুধবার দুপুর পর্যন্ত কঠিনতম সময়, অর্থাৎ ১৪ তম দিন শুরু হবে। এ পর্যন্ত

তার জ্বর স্বাভাবিক মাত্রায় আছে। যেটা মানুষের থাকা উচিত সেটাই আছে। অক্সিজেন খুবই ভালো আছে। খাওয়ার রুচি আগের মতো আছে। কখনই কাশি বা গলা ব্যথা ছিল না, এখনও নাই। এ অবস্থায় উনার (খালেদা জিয়া) যে চিকিৎসা চলছে তা এখনও চলবে। রাত পৌনে ১০টা থেকে প্রায় দেড় ঘণ্টাব্যাপী চিকিৎসক টিমের দু’জন সদস্য খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেন। পরে ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, ১৪ দিন পার হলে কিছু পরীক্ষা নিরীক্ষার পর পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে মেডিকেল

বোর্ড। বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান সার্বক্ষণিকভাবে চিকিৎসার খোঁজ খবর রাখছেন। ম্যাডামের (খালেদা জিয়া) চিকিৎসার ব্যাপারে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের সহধর্মিণী ডা. জোবাইদা রহমান সার্বক্ষণিক সমন্বয় করছেন। সুস্থতার জন্য খালেদা জিয়া দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন বলেও জানান ডা. জাহিদ। খালেদা জিয়ার আবার করোনা পরীক্ষা কবে করা হবে জানতে চাইলে ডা. জাহিদ হোসেন বলেন, মেডিকেল বোর্ড বসবে এবং এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেবেন। আগামী রোববার অথবা সোমবার একটা সময় হবে। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন ডা. মোহাম্মদ আল মামুন। গত ১১ এপ্রিল খালেদা জিয়ার করোনা শনাক্ত হওয়ার পর প্রখ্যাত বক্ষব্যাধি ও মেডিসিন বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. এফএম

সিদ্দিকীর নেতৃত্বে ব্যক্তিগত চিকিৎসকদের টিম গুলশানের বাসায় তার চিকিৎসা শুরু করে। ‘ফিরোজা’য় বিএনপি চেয়ারপারসন ছাড়াও আরো ৮ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের চিকিৎসাও সেখানে চলছে।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *