পেটের ক্ষুধা শোনে না কোনো কথা

রাজধানীর দুপুর যেন ফুটছে প্রচণ্ড গরমে। এরপর রোজার মাস বিশ্বজুড়ে আঘাত হেনেছে করোনাভাইরাস। ভয়াল এ থাবা থেকে বাদ পড়েনি

বাংলাদেশও। পরিত্রাণ পেতে জারি হয়েছে লকডাউন। “সবকিছুই” বন্ধ, চারিদিকে কড়াকড়ি। “লকডাউন” শব্দটি খেটে খাওয়া মানুষের কাছে

দুঃস্বপ্নের মতো। বন্ধ হয়ে যায় আয়-রোজগার। দু’বেলা দু’মুঠো মুখে দেওয়ার মতোও খাবার থাকে না অনেকের ঘরে। বাধ্য হয়েই রাস্তায় নামতে হয় একটু ত্রাণ অথবা সাহায্যের আশায়। তবে অন্যের সাহায্যের ধার ধারেন না নাজমা বেগম (৩৫)। ঘরে টাকা নেই, তাতে কী। শরীরে আছে শক্তি, আর মনে অদম্য ইচ্ছা। সেটাকেই সম্বল করে কিছু মাস্ক নিয়ে বেরিয়ে পড়েন ঢাকার রাস্তায়। কোলে শিশু মেয়ে দোলন। রাজধানীর দুপুর

যেন ফুটছে প্রচণ্ড গরমে। এরপর রোজার মাস। এরমধ্যেই নিজেকে বোরকায় আবৃত করে, মেয়েকে কোলে নিয়ে সড়কের পাশে বসে একের পর এক মাস্ক বিক্রি করে চলেন নাজমা। কাজটি কষ্টের। তাতে কী? পেটের ক্ষুধা তো শুনবে না কোনো কথা! বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) দুপুরে রাজধানীর মিন্টো রোড থেকে ছবিটি ক্যামেরাবন্দি করেছেন ঢাকা ট্রিবিউনের ফটোসাংবাদিক মেহেদী হাসান।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *