ডাক্তার না হয়েও ডাক্তারি করতে গিয়ে ধরা

কুষ্টিয়ায় চিকিৎসক সেজে মানুষের সাথে প্রতারণা করায় কে এইচ খান বিজয় নামে এক ভুয়া চিকিৎসককে আটক করা হয়েছে। সোমবার (২৬

এপ্রিল) দুপুরে তাকে আটকের পর দুই বছরের কারাদণ্ড প্রদান করেছে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। জানা যায়, গোপন খবরের

ভিত্তিতে শহরের মোল্লাতেঘরিয়া এলাকার কুষ্টিয়া অর্থোপেডিক অ্যান্ড জেনারেল হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে প্রতারক ওই ডাক্তারকে আটক করা হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী মাজিস্ট্রেট সবুজ হাসান ও র‍্যাব ১২ কুষ্টিয়ার কমান্ডিং অফিসার মেজর মাহাফুজুর রহমান। সম্পর্কিত খবর মাস্ক পরতে বলায় ডাক্তারকে প্রাণনাশের হুমকি ছাত্রলীগ নেতার কুয়েতে পাপুলের কারাদণ্ড

বেড়ে ৭ বছর টাইমস স্কোয়ারে বোমা হামলা: বাংলাদেশি যুবকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড তারা জানান, বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল আইনের কোর্ড জাল করে এই ব্যক্তি মানুষের সাথে প্রতারণা করে আসছিলেন। এ সময় তার সার্টিফিকেট যাচায়-বাছাই করে জালিয়াতির প্রমাণ পাওয়া যায়। বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যান্ড ডেন্টাল কাউন্সিল আইন ২০১০ এর ২৮ এর এক ধারায় ভুয়া চিকিৎসক এম কে

এইচ খান বিজয়কে দুই বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। একই সাথে ডাক্তারকে সর্বাত্মক সহযোগিতা করার জন্য কুষ্টিয়া অর্থোপেডিক অ্যান্ড জেনারেল হাসপাতালের মালিক সাইদুল ইসলামকে একই আইনের ২৮-২ উপধারা ১ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয়।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *