ভারতে করোনা রোগীকে অশ্বত্থ গাছের নিচে বসিয়ে রাখতে বললো পুলিশ

সারাদেশের মতো ভারতের উত্তর প্রদেশেও হু হু করে বাড়ছে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। রোগী বৃদ্ধির কারণে অক্সিজেনের সঙ্কটও

সেখানে প্রকট। হন্যে হয়ে ঘুরে বেড়ানো রোগীর পরিবারের লোকদের সেখানকার পুলিশ অক্সিজেনের অভাব মেটাতে সম্প্রতি যে পরামর্শ

দিয়েছেন তা নিয়ে চলছে তোলপাড়। উত্তর প্রদেশে করোনা আক্রান্ত রোগীদের জন্য অক্সিজেনের খোঁজে দৌড়ে বেড়াচ্ছেন স্বজনরা। রাজ্যের এলাহাবাদে বিজেপি বিধায়কের অক্সিজেন প্ল্যান্টেও ভিড় জমিয়েছিলেন অনেকে। সেখানে আইনশৃঙ্খলা বজায় রাখতে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। প্ল্যান্টে গিয়ে মায়ের জন্য অক্সিজেনের খোঁজ করছিলেন এক যুবক। সম্পর্কিত খবর করোনায় বিপর্যস্ত ভারতের পাশে ‘দিল্লি’ করোনায়

বিপর্যস্ত ভারতের পাশে পুরান করোনায় ব্রাজিলে মৃত্যু ৪ লাখ ছাড়ালো পুলিশ তখন তাকে বলেছে, মাকে অশ্বত্থ গাছের নিচে বসিয়ে রাখ। শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বেড়ে যাবে। এই ঘটনার ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়তেই বিষয়টি নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। করোনার চিকিৎসা করতে গিয়ে সাধারণ মানুষ কী রকম অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছেন তা দিনে দিনে আরও স্পষ্ট হচ্ছে। করোনা আক্রান্ত বাবার জন্য অক্সিজেন আনতে গিয়ে সেখানে পুলিশের তাড়া খাওয়ার কথা এক জানিয়েছেন আরেক যুবক। এক সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, অক্সিজেন প্ল্যান্টে কথা

বলার মতো কেউ ছিলো না। অক্সিজেনের জন্য কথা বলতে আমি ভেতরে যেতেই পুলিশ তাড়া করেছে। এলাহাবাদের সমস্ত হাসপাতাল ঘুরেও তিনি তার বাবার জন্য অক্সিজেন জোগাড় করতে পারেননি বলে জানিয়েছেন। সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *