নীলফামারীতে ২৫ হাজার কুকুরকে টিকা দেওয়া হবে

নীলফামারীতে চতুর্থ রাউন্ড জলাতঙ্ক (এমডিভি) রোগের প্রতিষেধক টিকা ২৫ হাজার কুকুরের মধ্যে প্রয়োগ করা হবে। এটি আগামীকাল

বৃহস্পতিবার ৬ থেকে ১০ মে পর্যন্ত চলবে। জলাতঙ্ক রোগের হাত থেকে রক্ষা পেতে জেলার ছয় উপজেলায় ২৫ হাজার কুকুরকে ওই টিকা

প্রয়োগ করা হবে। এর মধ্যে সদরে ৫ হাজার, ডোমারে ৪ হাজার, ডিমলায় ৪ হাজার, জলঢাকায় ৪ হাজার, কিশোরগঞ্জে ৪ হাজার, ও সৈয়দপুরে ৪ হাজার কুকুরকে ওই টিকা প্রয়োগ করা হবে। সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রাশেবুল হোসেন জানান, জলাতঙ্ক একটি মরণব্যাধি রোগ, এই রোগে মৃত্যুর হার শতভাগ। দেশে প্রতিবছরে ৫৯ হাজার মানুষের মৃত্যু হয় এই জলাতঙ্ক রোগে। আর প্রায়

৬ লাখ মানুষ ওইসব প্রাণীর আচঁড়ের শিকার হয়ে থাকে। নীলফামারী জেলার প্রত্যেক উপজেলায় প্রথম, দ্বিতীয় ও তৃতীয় রাউন্ড টিকাদান কর্মসূচির আওতায় ১৯ লাখ ২১ হাজার কুকুরকে জলাতঙ্ক প্রতিরোধক টিকা প্রদান করা হয়েছে। জেলায় চতুর্থ রাউন্ড টিকাদান কার্যক্রম শুরু হবে। এই রাউন্ডে মোট ২৫ হাজার কুকুরকে টিকা প্রয়োগ করা হবে। এই কর্মসূচি বাস্তবায়নে ১৭৩টি টিম কাজ করবে। এরমধ্যে নীলফামারী সদরে ৪১, সৈয়দপুরে ৩০, ডোমারে ২২, ডিমলায় ২৭, জলঢাকায় ২৭টি এবং কিশোরগঞ্জ উপজেলায় ২৬টি দল কাজ করবে। জেলা প্রাণী

সম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. মোনাক্কা আলী জানান, শুরু হচ্ছে চতুর্থ রাউন্ড জলাতঙ্ক প্রতিরোধক টিকা প্রয়োগ কর্মসূচি। জেলায় ২৫ হাজার কুকুরকে এই টিকা প্রয়োগ করা হবে। এটি চলবে ৬ থেকে ১০ মে পর্যন্ত।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *