সোমালিয়ায় দরিদ্র্য মুসলিমরা যেভাবে কুরআন শিক্ষা করে

সোমালিয়ায় অর্থনৈতিক ও সামাজিক পরিস্থিতি সংকটময় হওয়া সত্ত্বেও সেদেশের দরিদ্র পরিবারের মধ্যে কুরআনিক কার্যক্রম অব্যাহত আছে। সোমালিয়া বিশ্বের মধ্যে অন্যতম

একটি দরিদ্র দেশে। সেদেশের নাগরিকগণ কষ্ট ও দারিদ্রসীমার মধ্যে জীবন যাপন করলেও তাদের সন্তানদের কুরআনের আলেতে আলোকিত করার প্রচেষ্টা করছে। অপ্রতুল

ব্যবস্থাপনাতেই চলছে কুরআন শিক্ষা। প্রাচীন কালে কাঠ ও পাথরের উপর লেখা কুরআন মুখস্থ করা, অন্যতম কার্যকর পদ্ধতি হিসাবে বিবেচিত হত। আফ্রিকার অধিকাংশ দেশে কুরআন মুখস্থ করার ব্যবহারিক উপায় হিসেবে এখনও এই পদ্ধতি প্রচলিত আছে। পাঁচ বছর বয়স থেকে ১৮ বছরের যুবকরা এই পদ্ধতিতে কুরআন মুখস্থ করছে।

শিশুরা কালি ব্যবহার করে পাথর বা ব্ল্যাকবোর্ডে আয়াত লিখতে থাকে এবং অবিচ্ছিন্নভাবে লিখে আয়াতগুলো মুখস্থ করে। বর্তমানে, সোমালিয়ায় শক্তিশালী কেন্দ্রীয় সরকারের অভাবে সুরক্ষা ও পরিষেবা অনেক দুর্বল হয়ে গিয়েছে। সোমালিয়ার মোট জনসংখ্যা প্রায় ১ কোটি ১৬ লাখ এবং সেদেশের মোট জনসংখ্যার ৯৯% এর চেয়ে বেশি মুসলিম। সূত্র: ইকনা।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *