শোয়েব আখতার রীতিমত কথা হারিয়ে ফেলেছেন

তিনি এখন পর্যন্ত ক্রিকেট ইতিহাসের সবচেয়ে দ্রুতগতির পেসার। কিন্তু পাকিস্তানে তার নামে স্টেডিয়ামের নামকরণ হবে, সেটি শোয়েব আখতারের নিজেরই বিশ্বাস হচ্ছে না!

রাওয়ালপিন্ডি থেকে উঠে আসা কিংবদন্তি এই পেসারের নামে বদলানো হয়েছে সেখানকার ঐতিহাসিক খান রিসার্চ ল্যাবরেটরিজ (কেআরএল) স্টেডিয়ামকে। দক্ষিণ আফ্রিকার

কেপটাউনের নিউল্যান্ডসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে বিশ্বকাপ ম্যাচে ইতিহাসের সবচেয়ে দ্রুতগতির ডেলিভারিটি করেছিলেন শোয়েব। তার বলের গতি রেকর্ড হয় ১৬১.৩ কিলো/ঘন্টা বা ১০০.২ মাইল/ ঘন্টা। এখন পর্যন্ত সেই রেকর্ড ভাঙতে পারেননি কেউ। ঘরের ছেলেকে অবশেষে বড় সম্মাননা দিল রাওয়ালপিন্ডি। শোয়েব আখতার নিজের নামে স্টেডিয়াম দেখে রীতিমত কথা হারিয়ে ফেলেছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে টুইটারে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন সাবেক এই পেসার। টুইটারে শোয়েব

লিখেছেন, ‘সম্মানিত বোধ করছি, মাথা নিচু হয়ে আসছে এটা শেয়ার করতে গিয়ে যে, রাওয়ালপিন্ডির ঐতিহাসিক কেআরএল স্টেডিয়ামকে শোয়েব আখতার স্টেডিয়াম নামে নামকরণ করা হয়েছে। আমি সচরাচর কথা হারিয়ে ফেলি না, কিন্তু আজ! সত্যিই সবার এমন ভালোবাসা ও শ্রদ্ধায় কৃতজ্ঞতা জানানোর ভাষা আমার নেই।’ শোয়েব যোগ করেন, ‘আমি সবসময়ই নিজের সর্বোচ্চ প্রেরণা এবং দৃঢ়প্রতিজ্ঞা দিয়ে পাকিস্তানকে সেরাটা দিয়েছি। আমাদের পতাকাকে সবসময় উঁচুতে রাখতে চেয়েছি। এখন পর্যন্ত আমি আমার বুকে গর্বের সঙ্গে তারকাটা ধারণ করি। ধন্যবাদ, পাকিস্তান জিন্দাবাদ।’ পাকিস্তানের হয়ে ৪৫ টেস্ট, ১৬৩ ওয়ানডে আর ১৫টি টি-টোয়েন্টি খেলেছেন শোয়েব। টেস্টে তার নামের পাশে ১৭৮ উইকেট, ওয়ানডেতে ২৪৭ এবং ১৯ উইকেট পেয়েছেন টি-টোয়েন্টিতে।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *